ChannelPadma Privacy Policy

গরু চুরির অপবাদে প্রতিবন্ধীর দাত ও নখ তুলে নেওয়ার অভিযোগ

গরু চুরির অপবাদে প্রতিবন্ধীর দাত ও নখ তুলে নেওয়ার অভিযোগ
CHANNEL PADMA bd 2022

গরু চুরির অপবাদে প্রতিবন্ধীর দাত ও নখ তুলে নেওয়ার অভিযোগ : ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে গরু চুরির অপবাদ দিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে এক শারিরীক ও মানসিক প্রতিবন্ধীকে।

প্লাস দিয়ে দাত ও পায়ের আঙুলের নখ তুলে নেয়া ছাড়াও শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়েছে জসিম মোল্লা (২৫) নামের ওই প্রতিবন্ধীকে।

বর্তমানে তিনি বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেছেন গ্রামবাসী। এ ঘটনায় আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জসিম মোল্যা বোয়ালমারী উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের নয়ানিপাড়া গ্রামের মৃত মো: শুকুর মোল্লার ছেলে। তিনি সরকারের ভাতাপ্রাপ্ত একজন বাক প্রতিবন্ধী।

জসিমের বড় ভাই নিজাম মোল্যা জানান, গত ২৩ জুলাই হতে তার ভাই জসিম নিখোঁজ ছিলেন। তারা জসিমের সন্ধান চেয়ে মাইকিং এবং ফেসবুকেও অনেকে প্রচারণা চালায়।

পরে গত ২৭ জুলাই গভীর রাতে কমলেশ্বরদি গ্রাম দিয়ে আসার পথে কয়েকজন মানুষ জসিমকে আটকায়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে সন্তোষজনক উত্তর দিতে না পারায় জসিমের উপর নির্যাতন চালিয়ে গুরুতর আহত করে।

তারা জসিমকে পিটিয়ে সারা শরীর থেঁতলে দেয় এবং প্লাস দিয়ে দাত ও পায়ের নখ তুলে নেয়।

তিনি অভিযোগ করেন, খবর পেয়ে তারা জসিমকে উদ্ধার করতে গেলে তাদের উপরও চড়াও হয়ে কিলঘুষি মারে অভিযুক্তরা

এ ঘটনায় নিজাম মোল্যা বাদী হয়ে ফরিদপুরের আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার আসামীরা হলেন, উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের শারবানদিয়া গ্রামের জাফর মোল্যা, আনোয়ার হোসেন, আওলাদ ফকির, জালাল মল্লিক, শামিম হক, জিতিস মাহাতুর, বাশার মোল্যা, বাচ্চু, সাহেব মল্লিক, আব্দুর রহমান, মনিরুল ইসলাম।

আহত বাক প্রতিবন্ধী জসিমের চাচাতো ভাই নাসির জানান, আমরা ওখানে যাওয়ার পরে জানতে পারি স্থানীয় দাদপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন মুসা ও এক নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাফর স্থানীয়দের নির্দেশ প্রদান করেন জসিমকে মেরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার জন্য। তিনি এ ঘটনায় একই সাথে চেয়ারম্যানের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

প্রতিবন্ধী জসিমকে নির্যাতনের প্রতিবাদে এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তির দাবিতে সোমবার (০১ আগস্ট) বিকালে উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের তালতলা বাজারে গ্রামবাসী মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

এব্যাপারে বোয়ালমারী থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, খবর পেয়ে ওই রাতে পুলিশ আহতবস্থায় প্রতিবন্ধী জসিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে তার বিরুদ্ধে গরু চুরির একটি অভিযোগ দেয়া হয় থানায়। কিন্তু আমরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারি জসিম প্রকৃতই শারিরীক ও মানসিক প্রতিবন্ধী।

তাই বাদি তার অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন। তবে জসিমকে আহত করার ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। এ ধরনের কোন অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.