ChannelPadma Privacy Policy

শিশুকন্যাকে ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেপ্তার

শিশুকন্যাকে ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেপ্তার
CHANNEL PADMA bd 2022

শিশুকন্যাকে ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেপ্তার

ফরিদপুর শহরে আট বছরের শিশুকন্যা ধর্ষণের ঘটনার মামলার একমাত্র আসামি আমিরুল মৃধা (৩০) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) বিকেলে আমিরুল শিশুটিকে ধর্ষণের দায় স্বীকার করে ফরিদপুরের এক নম্বর আমলি আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

জবানবন্দি শেষে তাকে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এর আগে সোমবার রাতে শহরের পৌরবাস টার্মিনাল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত ১৯ জুন দুপুর দেড়টার দিকে শহরের ঝিলটুলী মহল্লার একটি বাগানে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। পরে এলাকাবাসী ওই শিশুটি গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ফরিদপুরে ভর্তি করে।

শিশুটি বর্তমানে বাড়িতে অবস্থান করছে। এ ঘটনায় ওই শিশুটির মা বাদী হয়ে আমিরুলকে একমাত্র আসামি করে গত ২০ জুন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন ফরিদপুর কোতয়ালী থানায়।

ফরিদপুরে সংবাদ সম্মেলন করে ধর্ষক আমিরুল মৃধার গ্রেপ্তারের খবর জানায় পুলিশ।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) জামাল পাশা।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আমিরুল মৃধা একজন দৃশচবিত্ত, ধর্ষণকারী প্রকৃতির লোক। বাদীনির মেয়ে (৮) শহরের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

শিশুকন্যাকে ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেপ্তার

বাদীনির স্বামী জীবিকার তাগিদে দুবাই থাকে। বাদীনি তার বাসার পাশের একটি মেসে রান্নার কাজ করেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আমিরুল শিশুটিকে টাকার লোভ দেখিয়ে শহরের চর কমলাপুর এলাকার একটি জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

আমিরুল মৃধা বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের খরসুতি এলাকার বাসিন্দা। তিনি শহরের দক্ষিণ কালীবাড়ী এলাকায় ভাড়া থেকে কখনো রিক্সা চালানো, কখনো বাসের হেলপারি করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

কোতয়ালী থানার ওসি এম এ জলিল বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে এ ধর্ষণ মামলার একমাত্র আসামি আমিরুল শিশুটিকে ধর্ষণের দায় স্বীকার করে ফরিদপুরের এক নম্বর আমলি আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দি শেষে তাকে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ফরিদপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নন্দিতা সুরক্ষার সভাপতি তাহিয়াতুল জান্নাত রেমি বলেন, ধর্ষণের শিকার ওই শিশুটিকে চিকিৎসা দেওয়া, মামলায় সহযোগিতা, কাউন্সিলিং করাসহ আর্থিক প্রণোদনা তারা দিয়েছেন। শিশুটি ট্রমা পর্যায় কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে।

বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) ফরিদপুরের সমন্বয়কারী শিপ্রা গোস্বামী বলেন, এই শিশুটির মামলাটির যাবতীয় দায়িত্ব ও ব্যয়ভার বহন করবে ব্লাস্ট।

শিশুকন্যাকে ধর্ষণ : ধর্ষক গ্রেপ্তার

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.