শুক্রবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন

অভিনেত্রী মুনমুন দত্তকে গ্রেপ্তারের দাবি

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১

ভারতীয় অভিনেত্রী মুনমুন দত্তকে গ্রেপ্তারের দাবি উঠেছে। সোমবার (১১ মে) সকাল থেকেই টুইটার ইন্ডিয়ায় ট্রেন্ডিংয়ে #ArrestMunmunDutta, ‘তারাক মেহতা কা উলটা চশমা’র ববিতাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে অনড় নেটিজেনরা। সাম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে  ইনস্টাগ্রাম ভিডিওতে মেক-আপ টিউটোরিয়াল দিতে গিয়ে দলিত সম্প্রদায়বিরোধী মন্তব্য করে বসেন মুনমুন!

অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি এবার ইউটিউবে আসতে চলেছি তাই আমি নিজেকে ভালো দেখাতে চাই, আমি এক্কেবারেই নিজেকে ভঙ্গি-র মতো দেখতে লাগুক তা চাই না’। আর এই শব্দ ঘিরেই যাবতীয় বিতর্ক। দলিত সম্প্রদায়ের মানুষদের জন্য এই শব্দটি শুধু অবমাননাকর তা নয়, সুপ্রিম কোর্টের বিধান অনুযায়ী এটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

কিন্তু এসসি, এসটি সম্প্রদায়ের ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার জেরে অভিনেত্রীকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার দাবি জানাচ্ছেন টুইটার ব্যবহারকারী অনেকে। মুনমুনের বিতর্কিত ভিডিও কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মতো ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। অবস্থা বেগতিক দেখে তড়িঘড়ি আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে ক্ষমা চান মুনমুন, বলেন ভাষার প্রতিবন্ধকতার জেরেই নাকি এমনটা ঘটেছে।

তিনি লেখেন- ‘গতকাল আমার পোস্ট করা একটি ভিডিওতে একটি শব্দকে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। আমি কোনোদিনই কাউকে অপমান করা, বা নিচু করে দেখানো কিংবা কারুর ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার ইচ্ছা নিয়ে ওই কথা বলিনি’।

তিনি আরও লেখেন, ‘শব্দটির অর্থ সম্পর্কে আমাকে সচেতন করা হলে আমি সঙ্গে সঙ্গে সেই অংশটি সরিয়ে দিয়েছি। আমি প্রতিটি বর্ণ, গোষ্ঠী বা লিঙ্গ থেকে প্রত্যেক ব্যক্তির জন্য অত্যন্ত শ্রদ্ধা এবং আমাদের সমাজ বা জাতির জন্য তার অপরিসীম অবদানকে স্বীকার করি। এই শব্দটির ব্যবহারে অজ্ঞাতসারে আহত হওয়া প্রত্যেক ব্যক্তির কাছে আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাইতে চাই এবং তার জন্য আমি দুঃখিত।’

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর