রবিবার, ২৯ অগাস্ট ২০২১, ০৯:১০ অপরাহ্ন

অবৈধভাবে বাবার পেনশন তুলে বরখাস্ত প্রধান শিক্ষক

পদ্মা ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১

সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার ডিক্রিরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হাবিবুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপ পরিচালক মো. ইফতেখার হোসেন ভূঁইয়া সাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি সদরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়।

ওই চিঠিতে ২২ আগস্ট তারিখ হতে প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্বে থাকা হাবিবুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এছাড়া ১০ কর্ম দিবসের মধ্যে প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমানকে চিঠির জবাব দিতে বলা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হাবিবুর রহমানের বাবা আবদুস সামাদ মিয়া সদরপুর উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে কর্মরত ছিলেন। বাবার মৃত্যুর পর হাবিবুর রহমান তিনি স্কুলে চাকরি পান। পরে তিনি স্কুলের প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। হাবিবুর রহমানের বাবার মৃত্যুর পর তার মা রোকেয়া বেগম পেনশনের টাকা উত্তোলন করতেন। রোকেয়া বেগম ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন। মায়ের মৃত্যুর পর ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২০ সালের মে পর্যন্ত হাবিবুর রহমান তিন লাখ ৬৫ হাজার ২৭৬ টাকা অবৈধভাবে উত্তোলন করেন।

এ নিয়ে স্থানীয় মো. নুরুল ইসলাম ফরিদপুর জেলা প্রশাসকসহ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে একটি অভিযোগ করেন। সে অভিযোগ জানাজানি হলে চাকরি বাঁচাতে ২০২০ সালের ১১ জানুয়ারি তিন লাখ ৬৫ হাজার ২৭৬ টাকা সোনালী ব্যাংক সদরপুর শাখায় ট্রেজারি চালানোর মাধ্যমে জমা দেন। কিন্তু প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে তদন্তে হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। অবৈধভাবে বাবার পেনশন হিসেবে উত্তোলন সংক্রান্ত তদন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে সরকারি কর্মচারী বিধিমালা ভঙ্গ করায় তাকে বরখাস্ত করা হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান জানান, একটি চিঠি তিনি পেয়েছেন। নির্ধারিত সময়েই চিঠির জবাব দেবেন।

এ বিষয়ে সদরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবদুল মালেক বলেন, ঢাকা থেকে চিঠির মাধ্যমে হাবিবুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করার চিঠি পেয়েছি। সে মোতাবেক তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর